আজ

  • শনিবার
  • ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

উচ্চতা আর প্রতিবন্ধিতা দমাতে পারেনি আরিফকে

  • নিজস্ব প্রতিনিধি
  • শারীরিক উচ্চতা তার মাত্র তিন ফিট। কিন্তু তাতে কী? ইচ্ছা আর মনে শক্তি যথেষ্ট। তার শারীরিক প্রতিবন্ধকতা তাকে দাবিয়ে রাখতে পারেননি। পড়ালেখার প্রবল আগ্রহে থেকে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছেন শারীরিক প্রতিবন্ধী কাজী আশ্রাফুল হায়দার আরিফ (২৮)।

    আরিফ ফেনী সরকারি কলেজে এমবিএ শিক্ষার্থী। সে দাগনভূঞা উপজেলার মোমারিজপুর গ্রামের মো. ইব্রাহীমের ছেলে। তার বাবা একজন কৃষক। মাতা সবুরা বেগম একজন গৃহিণী।

    কাজী আশ্রাফুল হায়দার আরিফ জানায়, সে পড়া-লেখার পাশাপাশি কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিয়ে গ্রামের অনেককে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। তার কাছে একটি কম্পিউটার রয়েছে। কম্পিউটার আরো থাকলে তাকে প্রশিক্ষণ দিতে সুবিধা হত। সে পড়ালেখা শেষ করে সরকারি চাকুরী করতে চায়।

    সবুরা বেগম জানান, আরিফ জন্মগত শারীরিক প্রতিবন্ধী। চার বোনের মধ্যো একমাত্র ভাই। সে পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি। অভাবি সংসারে পড়াশুনা করানো অনেক কষ্ট হয়ে যায়। আমাদের এমন কষ্টের সংসারে বিশেষ করে আমার প্রতিবন্ধী ছেলের লেখা-পড়ার খরচ দিতে বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে আরও সহজ হতো।

    দাগনভূঞা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী ইফতেখারুল আলম বলেন, পড়া-লেখার প্রবল ইচ্ছা শক্তি আরিফকে আজ এত দূর পৌঁছেছে। তাকে দেখে অন্যরাও সাহস পাবে। আরিফ উচ্চ শিক্ষা শেষ করে কর্মক্ষেত্রও সে সফল হবে আমার বিশ্বাস। জীবন এগিয়ে যেতে শারীরিক প্রতিবন্ধকতা কোন বাধা নয়, তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আরিফ।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090