আজ

  • বৃহস্পতিবার
  • ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মিথ্যাচারের প্রতিবাদ ও পাওনা টাকা উদ্ধারে ফেনীতে ছাত্রলীগ নেতা বাবুর সংবাদ সম্মেলন

  • শহর প্রতিনিধি
  • ফেনী জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জমির উদ্দিন বাবুর বিরুদ্ধে জেলা ছাত্রলীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক সোহরাব হোসেন তারেক সংবাদ সম্মেলন করে মিথ্যাচারের প্রতিবাদ জানিয়ে পাল্টা সংবাদ সন্মেলন করেছেন জমির উদ্দিন বাবু। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২ টার ফেনী জেলা দায়রা জজ আদালতের সামনে জমির উদ্দিন বাবু সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

    সংবাদ সম্মেলনে জমির উদ্দিন বাবু বলেন, নষ্ট পরিবারের অসহায় তারেককে দলীয় পরিচয়ের সূত্র ধরে আমার ঠিকাদারী ব্যবসার কাঁচামাল সরবরাহ করতে সাথে রাখি। সে কখনই আমার ব্যবসায়িক পার্টনার ছিলো না। আমি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক হওয়ায় আমার কাজের জন্য ইট, বালুর প্রয়োজন হয়। তারেক মাটির ব্যবসা করায় তার সাথে বিভিন্ন ব্রিকফিল্ডের মালিকের সখ্যতা রয়েছে। ফলে সে আমাকে বাজার মূল্যের কম দামে ইট ক্রয় করে দেওয়ার শর্তে আমার কাছ থেকে ধাপে ধাপে সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে ৩২ লাখ ৯৪ হাজার টাকা নেয়। কিন্তু আমাকে ইট না দিয়ে তারেক অন্যত্র ইট বিক্রয় করে দেয়। আমি তারেকের কাছে ইট চাইলে সে নানা তালবাহানা শুরু করে।

    বাবু আরো বলেন, উপায়ন্তর না দেখে স্হানীয় চেয়ারম্যানের কাছে বিষয়টি অবহিত করি। এরই প্রেক্ষিতে সৌরভের বাড়ীতে উভয়ের উপস্হিতিতে সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বৈঠকে তারেক টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে অঙ্গীকারনামা প্রদান করে। অঙ্গীকারনামা অনুযায়ী জিম্মাদার হন সৌরভ ও সোহরাব হোসেন তারেক’র স্ত্রী অধরা আক্তার নদী। ২৫ মে ২০২১ ইং তারিখের মধ্যে আমার পাওনা টাকা পরিশোধ করার কথা ছিল। কিন্তু সে টাকা না দিতে অসৎ উদ্দেশ্যে আমার বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করে মিথ্যা অপপ্রচারে লিপ্ত হয়। আমি এধরনের মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

    পাশাপাশি এধরনের অপপ্রচার ও মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে এবং আমার ন্যায্য পাওনা টাকা পেতে ফেনীর জুড়িশিয়াল আদালতে সোহরাব হোসেন তারেক, সাখাওয়াত হোসেন তুষার তার স্ত্রী অধরা আক্তার নদীকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেছি।

    সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বাবু বলেন, আগামীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার সংবাদে আমার প্রতিপক্ষ কতিপয় ব্যক্তি তারেককে দাবার গুটি সাজিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন কল্পকাহিনী প্রচার করছে।

    এসব অভিযোগ বিষয়ে জানতে জেলা ছাত্রলীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক সোহরাব হোসেনের মুঠোফোনে বার বার কল দিলে বন্ধ পাওয়া যায়।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090