আজ

  • রবিবার
  • ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেনীতে ধারণকৃত ইত্যাদি প্রচারিত হবে ৩০ ডিসেম্বর

  • নিজস্ব প্রতিনিধি
  • দেশকে জানতে ও জানাতে ইত্যাদি যাচ্ছে দেশের নানা প্রান্তে। এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে ইতিহাস, ঐতিহ্য, শিক্ষা, সংস্কৃতি, মহান ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসসমৃদ্ধ ফেনী জেলায়। মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে বাংলাদেশের প্রাচীনতম বিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অন্যতম ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে। অনুষ্ঠানটি ধারণ করা হয় ১৭ ডিসেম্বর। ইত্যাদির ধারণ উপলক্ষে ফেনীতে ছিল উৎসবের আমেজ। ইত্যাদির ধারণ অনুষ্ঠান চলে সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত। জেলা প্রশাসন ও ফেনী পৌরসভার সহযোগিতায় ধারণ সম্পন্ন হয়।

    এবারের অনুষ্ঠানে আধুনিক ও ফোকের ফিউশনে একটি দ্বৈত সংগীত গেয়েছেন এ সময়ের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী পান্থ কানাই ও ডলি সায়ন্তনী। গানটির কথা লিখেছেন কবির বকুল, সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন আকাশ মাহমুদ। রয়েছে ফেনী জেলা নিয়ে একটি পরিচিতিমূলক গানের সঙ্গে স্থানীয় প্রায় শতাধিক নৃত্যশিল্পীর নাচ। গানটি লিখেছেন মনিরুজ্জামান পলাশ, সুর করেছেন হানিফ সংকেত, সংগীতায়োজন করেছেন মেহেদি, কণ্ঠ দিয়েছেন তানজিনা রুমা, পুলক ও রিয়াদ। নৃত্য পরিচালনা করেছেন মনিরুল ইসলাম।

    ইত্যাদি দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রচারবিমুখ, জনকল্যাণে নিবেদিত মানুষদের তুলে ধরার পাশাপাশি প্রত্যন্ত অঞ্চলের অচেনা-অজানা বিষয় ও তথ্যভিত্তিক শিক্ষামূলক প্রতিবেদন প্রচার করে আসছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবারের পর্বেও রয়েছে কয়েকটি প্রতিবেদন। রয়েছে ফেনীর ইতিহাস, ঐতিহ্য, মুক্তিযুদ্ধ ও কীর্তিমান ব্যক্তিদের ওপর তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন। রয়েছে ফেনীর সীমান্তবর্তী মানুষের সুখ-দুঃখ, জীবনযাপনের ওপর একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। রংপুর জেলার পীরগঞ্জের গনি মিয়াকে নিয়ে রয়েছে মানবিক প্রতিবেদন। পরিবেশদূষণের বিরুদ্ধে ও পরিচ্ছন্ন পরিবেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে রংপুর জেলার পীরগাছা মহিলা কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের প্রভাষক প্রকৃতিপ্রেমিক রফিকুল হাসানের ব্যতিক্রমী উদ্যোগের ওপর রয়েছে সচেতনতামূলক প্রতিবেদন।

    রয়েছে ফেনীর প্রচারবিমুখ সমাজকর্মী মঞ্জিলা আক্তারের ওপর আরেকটি প্রতিবেদন। যিনি অসহায় মানুষকে সহায়তা দেওয়ার জন্য প্রতিষ্ঠা করেছেন মানবিক ও সামাজিক সংগঠন ‘সহায়’। বিদেশি প্রতিবেদন পর্বে দেখা যাবে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা রাজ্যের রচেস্টার শহরে অবস্থিত মেয়ো ক্লিনিক নিয়ে একটি প্রতিবেদন।

    দর্শকপর্বে নির্বাচিত দর্শকেরা আঞ্চলিক ভাষায় একটি নাট্যাংশে অভিনয় করেন। দর্শকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অভিনেত্রী, ফেনীর কন্যা শমী কায়সার। এ ছাড়া যথারীতি ছিল সমসাময়িক বিভিন্ন প্রসঙ্গ নিয়ে নানি-নাতি পর্ব, নিয়মিত পর্বসহ বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে নাট্যাংশ।

    এবারের ইত্যাদিতে উল্লেখযোগ্য শিল্পীরা হলেন সোলায়মান খোকা, জামিলুর রহমান, জিয়াউল হাসান, মম আলী, মাহফুজুর রহমান, সুভাশিষ ভৌমিক, তুষার খান, শবনম পারভীন, মুকিত জাকারিয়া, বড়দা মিঠু, জিল্লুর রহমান, আমিন আজাদ, মামুনুল হক, বিনয় ভদ্র, বিলু বড়ুয়া, তারিক স্বপন, জামিল হোসেন, আবু হেনা রনিসহ আরও অনেকে।

    ইত্যাদির এ পর্বটি একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচারিত হবে ৩০ ডিসেম্বর, রাত আটটার বাংলা সংবাদের পর। ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090