আজ

  • শুক্রবার
  • ২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ফিলিস্তিনিদের উপর হামলার প্রতিবাদে ফেনী জেলা স্বেচ্ছাসেবক পরিবারের মানববন্ধন

  • নিজস্ব প্রতিনিধি
  • গাজায় নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদের উপর হামলার প্রতিবাদে ফেনী জেলা সে্চ্ছাসেবক পরিবারের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হয়েছে।

    বক্তারা ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে ইসরাইলের বর্বরোচিত হামলার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্ব, জাতিসংঘ, আরব লীগ এবং ওআইসিকে অবিলম্বে জরুরি বৈঠকে বসে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া ও শহরের ট্রাংক রোড চত্তরে – We Want Justice – Israel Terrorist এবং ইসরাইল নিপাত যাক, ফিলিস্তিন জিন্দাবাদ এই স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত ছিল।

    বুধবার (১৯ মে) বিকেল ৪টায় ফেনী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে ইসরাইলী বর্জনের আহ্বান জানানো হয়। এ সময় ফেনী জেলার সকল সেচ্ছাসেবী সংঘটনের নীতিনির্ধারক ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

    মানববন্ধনে সেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায় এর সভাপতি মঞ্জিলা মিমি বলেন, মসজিদুল আকসাসহ ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে একের পর এক হামলা করে ইসরায়েল মুসলিমদের বিরুদ্ধে ক্রুসেড ঘোষণা করেছে। বিশ্বের মোড়ল দেশগুলোর ইন্ধন ও প্রশ্রয়ে দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ইসরায়েল। রোজার মাসে ইফতারের সময় এমনকি ঈদুল ফিতরের দিনেও মসজিদুল আকসায় নামাজরত মুসল্লিদের ওপর বর্বর হামলা চালিয়ে শত শত নিরীহ ফিলিস্তিনি মুসলমানদের শহীদ করেছে। মুসলমানদের ওপর এমন উদ্ধত আচরণ মেনে নেয়া যায় না।

    আরো বক্তব্য রাখেন আরটিআর শরিফুল ইসলাম অপু। তিনি বলেন বিশ্ব যখন করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত ঠিক তখনই ইসরাইল ফিলিস্তিনিদের ওপর একের পর এক বর্বর হামলা চালিয়ে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ক্রুসেডে নেমেছে। ইসরায়েলি দখলদার বাহিনীর হামলায় ফিলিস্তিনে আজ মানবিক বিপর্যয় নেমে আসছে। তাদের হামলা থেকে গণমাধ্যম, ধর্মীয় উপাসনালয়, নারী , শিশু, বৃদ্ধ কেউই রক্ষা পাচ্ছে না। এটা মানবতার বিরুদ্ধে জঘন্য অপরাধ।

    সময় সংবাদের রিপোটার আতিয়ার সজল বলেন, স্বাধীন ফিলিস্তিনের ওপর রাসায়নিক গ্যাস নিক্ষেপসহ ইসরায়েল একের পর এক বোমা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে জাতিসংঘসহ বৈশ্বিক সংস্থাগুলো এবং শক্তিধর দেশগুলো এখনই ইসরায়েলি বর্বরতা ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াতে সব দেশকে এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকারকেও জোরালো নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং ইসরাইলের সকল পণ্য ও এপস বর্জনের আহ্বান করেন।

    এছাড়াও জেলার সকল সেচ্ছাসেবী সংঘটনের দায়িত্বশীলরা বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, কয়েকদিন ধরে ইসরায়েলের হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন আড়াই শতাধিক ফিলিস্তিনী। এর অধিকাংশই নারী শিশু – নারী ও বেসামরিক জনগণ। অথচ মানবতার বুলি আওড়ানো বিশ্বনেতারা কোনো ভূমিকা পালন করছেন না। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন শক্তিশালী দেশ ইসরায়েলের পক্ষে এ নৃশংসতাকে সমর্থন জানিয়ে আসছে যা খুবই দুঃখজনক ও নিন্দনীয়।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090