আজ

  • বুধবার
  • ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শ্রদ্ধা ভালোবাসায় ফেনীতে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন

  • নিজস্ব প্রতিনিধি
  • হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী। একইসাথে শুরু হয়েছে বছরব্যাপী মুজিববর্ষ। দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, রাজনৈতিক সংগঠন, সরকারি-বেসরকারি দপ্তরসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছেন। দিনটিকে ঘিরে ফেনীতে আনন্দ আর উচ্ছ্বাস বিরাজ করছে।

    দিবসের প্রথম প্রহরে জেলা পুলিশ লাইন্স মিলনায়তনে তোপধ্বনির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপর শহরের জেল রোডে জাতীয় সংগীত গেয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে একে একে শ্রদ্ধা জানান ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান, পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরুন্নবী। এরপর শ্রদ্ধা জানান জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজ আহম্মদ চৌধুরী, ফেনী পৌর মেয়র হাজী আলাউদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট আকরামুজ্জমানসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পুষ্পস্তবক অপর্ণ করেন।

    শ্রদ্ধা জানানো শেষে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী। এসময় ফেনীবাসীকে মুজিববর্ষের শুভেচ্ছা জানান সাংসদ। তিনি বলেন, মুজিববর্ষ আমাদের জন্য অনেক সৌভাগ্যের। ভবিষ্যতে এখানে উপস্থিত আমাদের মধ্যে হয়তো কেউই এমন আরেকটি বর্ষ পালন করতে পারবনা।

    বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে নিজাম উদ্দিন হাজারী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনেক আগেই স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছেন। এ কারণেই সাধারণ মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে পাকিস্তানের কাছ থেকে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছেন।
    এসময় মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদদের প্রতি ও ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের নিহত সকল সদস্যদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাসহ রুহের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন নিজাম উদ্দিন হাজারী।

    উপস্থিত সকলকে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন হবার আহ্বান জানিয়ে সাংসদ বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাসে আতঙ্ক না হয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে। আমরা যদি পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা এবং অন্যান্য শিষ্টাচার মেনে চলি তাহলে এ ভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেতে পারি।

    বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মত্যাগ, অসীম সাহস এবং বীরত্বপূর্ণ কার্যক্রমের মাধ্যমে আজ আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তিনি বলেন, আমরা মুজিববর্ষের মত একটা উৎসব পেয়েছি, এজন্য সবাই সৌভাগ্যবান।

    জেলা প্রশাসক বঙ্গবন্ধুর কৃতিত্বের কথা উল্লেখ করে বলেন, আমরা সারাজীবন স্মরণ করলেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঋণ কখনো শোধ করতে পারবনা।

    পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী বলেন, মুজিববর্ষের মত এমন একটি উৎসব পালনের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এসময় খোন্দকার নুরুন্নবী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান। পুলিশ সুপার বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের জন্য সারা জীবন উৎসর্গ করে গেছেন। তার আত্মত্যাগ, চিন্তা-চেতনা, দর্শন আমাদের অনুপ্রেরণা জোগায়। এসব আমাদের মনে প্রাণে ধারণ করতে হবে।

    ফেনী পৌর কাউন্সিলর বাহার উদ্দিন বাহারের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট আক্রামুজ্জমান, পৌর মেয়র হাজী আলাউদ্দিন।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি/এপি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090