আজ

  • বৃহস্পতিবার
  • ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সোনাগাজীতে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় সেই আ.লীগ নেতা বহিষ্কার

  • সোনাগাজী প্রতিনিধি
  • সোনাগাজীতে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা তমিজ উদ্দিন। সোনাগাজী মডেল থানা চত্বরে
    সোনাগাজীতে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা তমিজ উদ্দিন। সোনাগাজী মডেল থানা চত্বরেপ্রথম আলো
    ফেনীর সোনাগাজীতে স্কুলছাত্রীকে (১৫) ধর্ষণের মামলার আসামি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি তমিজ উদ্দিনকে দল থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইসমাইল ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আলম মিয়াজী স্বাক্ষরিত এক পত্রের মাধ্যমে বিষয়টি জানা গেছে।

    বৃহস্পতিবার রাতে ওই স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে আওয়ামী লীগের নেতা তমিজ উদ্দিনকে (৪৫) আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করেন। ওই রাতেই উপজেলার ভাদাদিয়া এলাকা থেকে তমিজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিনি উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

    পুলিশ ও পরিবার সূত্র জানায়, উপজেলার একটি বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রীর বাবা আওয়ামী লীগ নেতা তমিজ উদ্দিনের ফার্নিচারের দোকানে কাজ করেন। ১ অক্টোবর মেয়েটি প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় তমিজ উদ্দিন তাকে ডেকে দোকানের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি কাউকে বললে তাকে ও তার বাবাকে মেরে ফেলার হুমকিও দেন তিনি। ঘটনাটি তমিজের স্ত্রী দেখে ফেলে ওই ছাত্রীকে দ্রুত তাড়িয়ে দেন। এ নিয়ে তমিজ ও তাঁর স্ত্রীর মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা হলে আশপাশের মানুষও বিষয়টি জানতে পারেন।

    ওই স্কুলছাত্রীর মায়ের দাবি, তমিজ উদ্দিন তাঁর মেয়েকে কৌশলে দোকানের ভেতরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেছেন। বিষয়টি তাঁর মেয়ে বাড়িতে গিয়ে তাঁকে জানালেও তমিজ উদ্দিনের ভয়ে তাঁরা এত দিন মামলা করতে সাহস পাননি। বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তিনি থানায় গিয়ে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় তিনি তমিজ উদ্দিনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিও দাবি করেন।

    আজ শুক্রবার দুপুরে হাসপাতালে ওই ছাত্রীর শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন করে আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। একই সঙ্গে ধর্ষক তমিজ উদ্দিনকেও আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
    বিজ্ঞাপন

    এ বিষয়ে উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইসমাইল বলেন, মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি পরিচয় ব্যবহার করে তমিজ উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে প্রভাব খাটিয়ে এলাকায় অনৈতিক কাজ করে আসছেন। দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে এবং ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ায় জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের নির্দেশক্রমে তাঁকে আওয়ামী লীগের সব স্তরের সদস্যপদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি তমিজ উদ্দিনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

    সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবদুর রহিম সরকার বলেন, আজ শুক্রবার দুপুরে ফেনী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ওই ছাত্রীর শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন করে তাঁকে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে তাঁর ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। একই সঙ্গে ধর্ষক তমিজ উদ্দিনকেও আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। আদালত সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

    এদিকে আজ সকালে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনকারীদের শাস্তির দাবিতে সোনাগাজী-মুহুরি প্রকল্প সড়কের সোনাপুর এলাকায় হাজী সেলিম কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090