আজ

  • মঙ্গলবার
  • ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

স্বামীর সাথে অভিমানে শরীরে আগুন: দাগনভূঞার সেই গৃহবধু চারদিন পর মারা গেলেন

  • দাগনভূঞা প্রতিনিধি
  • ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার পূর্ব চন্দ্রপুর মডেল ইউনিয়নের বৈঠারপাড় গ্রামের এক গৃহবধু সোমবার মারা গেছেন। শুক্রবার থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নেয়ার পর চারদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

    পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে বৈঠারপাড় এলাকার মুজা মিয়ার বাড়ির মো. মোস্তফার প্রবাসী ছেলে ইসমাইল হোসেন রতনের সাথে স্ত্রী শারমীন আক্তারের মনোমালিন্য হয়। এর জেরে অভিমানে রাত ১১টার দিকে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। অবস্থা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের নির্দেশ দেন। পরদিন শুক্রবার সকালে অগ্নিদ্বগ্ধ শারমীনকে চট্টগ্রাম নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার তার মৃত্যু হয়। নিহত শারমীনের ইমন নামের ১০ বছর বয়সী এক পুত্র সন্তান রয়েছে।

    পূর্ব চন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাসুদ রায়হান জানান, শরীরে আগুন দিয়ে গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। স্বামীর সাথে অভিমান করে আগুন দিয়েছেন বলে পরিবারের সদস্যরা তাকে জানিয়েছেন।

    দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচাজ (ওসি) মো. আসলাম শিকদার অগ্নিদ্বগ্ধ শারমীনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

    ফেনী ট্রিবিউন/এএএম/এটি/এমপি


    error: Content is protected !! please contact me 01718066090